বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৮:৫৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা
নড়াইলে চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামী গ্রেফতার ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে কুয়াকাটায় সৈকতে ভেসে এসেছে মৃত হরিণ সেপটিক ট্যাংক ভেঙে অনেক মাংস পেয়েছি জানিয়েছেন ডিবি হারুন কেএমপি’র পুলিশ কমিশনার কর্তৃক খুলনা বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন ২০২৪  ঝিনাইগাতীতে নবাগত ইউএনও’র বরণ অনুষ্ঠান নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে কাঁদলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী ঘূর্ণিঝড় ১৭ নম্বর বিশেষ বিজ্ঞপ্তি, ১৬ জেলায় ১২ ফুট জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা ফরিদপুর সদর উপজেলার শিবরামপুর ভেজাল গুড়ের কারখানায় অভিযান চালিয়ে দুই লাখ টাকা জরিমানা রাজশাহী জেলার বেস্ট অফিসার ইনচার্জ গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি আব্দুল মতিন বিমানবাহিনী প্রধান হলেন হাসান মাহমুদ খাঁন

আমতলীর ২৪ হাজার শিক্ষার্থী পেল ফাইজারের টিকা।

আমতলী(বরগুনা)প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২৫৭ বার পঠিত

মহামারি করোনা বিস্তার রোধে বরগুনার আমতলী উপজেলায় প্রথম ধাপে ৭৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যায়নরত ১২ থেকে অনূর্ধ্ব ১৮ বছর বয়সী ২৪ হাজার ৬১৬ জন শিক্ষার্থী পাচ্ছে ফাইজারের টিকা। জন্ম- নিবন্ধনের সনদের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা এই টিকার জন্য নিবন্ধন করে টিকা গ্রহণ করছে।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, করোনা বিস্তার রোধে সরকার সকলকে টিকার আওতায় নিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় সারাদেশে ১২ থেকে অনূর্ধ্ব ১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকা কার্যক্রমের আওতায় আনা হয়েছে। আমতলী উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়নরত ছাত্র- ছাত্রীরা উৎসবমুখর পরিবেশে টিকা নিচ্ছেন।

টিকা গ্রহণ শেষে আমতলী সরকারী একে হাই স্কুলের শিক্ষার্থী মোঃ সাখওয়াত হোসেন সংগ্রাম জানায়, আমরা ফাইজারের টিকা পেয়ে অনেক খুশি। প্রথম দিকে ব্যথা লাগবে ভেবে ভয় পেয়েছিলাম, কিন্তু কখন যে টিকা দিয়ে দিয়েছে বুঝতেই পারিনি। টিকা নিতে পেরে আমার অনেক ভালো লাগছে।

দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী নাদিয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদেরকে করোনা ভ্যাকসিনের আওতায় এনেছেন এজন্য তাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। টিকা পেয়ে আমরা অনেক খুশি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জিয়া উদ্দিন মিলন মুঠোফোনে বলেন, বিদ্যালয়ের সময়সূচি অনুযায়ী টিকা প্রদানের ব্যবস্থা করেছি। পর্যায়ক্রমে আগামী ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত উপজেলার ৭৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ২৪ হাজার ৬১৬ জন শিক্ষার্থীদের এই টিকা দেওয়া হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবদুল মুনয়েম সাদ মুঠোফোনে বলেন, উপজেলার স্কুল ও কলেজের ১২ থেকে ১৭ বছরের সব শিক্ষার্থীকে ফাইজারের টিকা দেওয়া হচ্ছে। এই টিকা দেওয়ার যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগ। আমরা শুধু টিকা সংরক্ষণ ও প্রয়োগের কাজটি করছি।

তিনি আরও বলেন, উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ এবং টিকা সংরক্ষণের মতো কোনো ফ্রিজ না থাকায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে টিকা নিতে হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই পত্রিকার সকল সংবাদ, ছবি ও ভিডিও স্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক মাতৃজগত    
কারিগরি সহযোগিতায়ঃ Bangla Webs
banglawebs999991