শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ১০:১৭ অপরাহ্ন
ঘোষনা
যশোরে বিদেশী পিস্তল, গুলি ও বার্মিজ চাকু সহ গ্রেফতার ০১ জন চাঁপাইনবাবগঞ্জে কোটা সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ করে  রংপুরে নিহত শিক্ষার্থী আবু সাঈদের দাফন সম্পন্ন দেশের সব স্কুল-কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা গোমস্তাপুরে বিএমডিএ গোমস্তাপুর জোনাল অফিস ভবন নির্মাণ কাজের  শুভ উদ্বোধন  ফরিদপুর শহরের আদর্শ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে কারাগারে মুরাদনগরে মাদককে “না” বলি সামাজিক সচেতনতা ও অপরাধমুক্ত সমাজ গড়ি কোটা আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন ফরিদপুর মেডিকেলের পরিচালককে প্রত্যাহারের দাবিতে সড়ক অবরোধ ফরিদপুরে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা সাত বছর পালিয়ে থেকেও শেষ রক্ষা হলো না সবুজের

গাইবান্ধায় স্কুলছাত্র শিহাব হত্যার রহস্য উন্মচন: তিন কিশোর গ্রেফতার

জোবায়দুর রহমান জুয়েল 
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০২২
  • ১৩৩ বার পঠিত

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির ছাত্র শাহরিয়ার রহমান শিহাব(১৫) হত্যার রহস্য উন্মচন করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত তিন বন্ধুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার (২০জুলাই) দুপুরে গাইবান্ধা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন এসপি মো. তৌহিদুল ইসলাম।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, পঞ্চাশ লাখ টাকা মুক্তিপণের আশায় ঈদের দুই সপ্তাহ আগে সুমন, জিন্না ও বাদশা তিন বন্ধু পূর্ব বেলকা গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে (একই বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র) শাহরিয়ার রহমান শিহাবকে অপহরণের পরিকল্পনা করেন। সে মোতাবেক গত ১৪ জুলাই রাত ৯টার দিকে শিহাবকে বাড়ি থেকে ঢেকে নিয়ে যায় তারা। মুক্তিপণের পরিকল্পনা ব্যর্থ হলে। মোটরসাইকেলে করে তিন বন্ধু শিহাবকে তুলে নিয়ে যায় ধুবনি এলাকার তিস্তা নদীর লাল চামার খেয়াঘাটে। সেখানে শিহাবকে বস্তাবন্দি করে তিনবন্ধু চুবিয়ে চুবিয়ে হত্যা করে লাশ নদীতে ফেলে দেন।

ঘটনার পরদিন গত ১৫ জুলাই নিহত শিহাবের মরদেহ নদী থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এর পর ১৬ জুলাই অজ্ঞাত আসামি করে থানায় হত্যা মামলা করেন নিহতের বাবা আতাউর রহমান।

মঙ্গলবার (১৯জুলাই) রাতে হত্যায় সাথে সরাসরি জড়িত তিন কিশোরকে তাদের নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করেন পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার মধ্য শান্তিরাম গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক ওরফে সুমন (১৫), শান্তিরাম গ্রামের মঞ্জু মিয়ার ছেলে জিন্না মিয়া (১৬) ও একই গ্রামের ফরিদুল ইসলামের ছেলে বাদশা মিয়া (১৪)। তারা তিনজন স্থানীয় বেলকা এমসি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে হত্যাকারি ওই তিন কিশোর। বিকেলে গ্রেপ্তার তিনজনকে আদালতে নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই পত্রিকার সকল সংবাদ, ছবি ও ভিডিও স্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক মাতৃজগত    
কারিগরি সহযোগিতায়ঃ Bangla Webs
banglawebs999991