বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০২:২৭ অপরাহ্ন
ঘোষনা
নাটোরে বাগাতিপাড়ায় আগুনে পুড়ে নিঃস্ব ৬ পরিবার শ্রীপুরে তালাবদ্ধ ঘর থেকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় জড়িত ২ জনকে গ্ৰেফতার করেছে র‌্যাব-১ রায়গঞ্জে শিক্ষা বিষয়ক গ্লোবাল এ্যাকশন সপ্তাহ পালিত ঝিনাইদহ র‌্যাবের অভিযানে মানব পাচার চক্রের মূলহোতা গ্রেফতার আরএমপি’র মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত সি‌লেট বিভা‌গের শ্রেষ্ঠ ও‌সি নির্বাচিত হলেন, ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহ আলম জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেনের রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন নীলফামারী ডোমার উপজেলায় এক যুবক ট্রেনে কাটা পরে নিহত  কসবায় বিএসএফ এর গুলিতে বাংলাদেশী যুবক নিহত আ.লীগের যৌথসভা মঙ্গলবার

গাজীপুরে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিলো প্রথম স্ত্রী নিপা

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৭৪ বার পঠিত

 

 

আলমগীর হোসেন সাগর স্টাফ রিপোর্টার :   গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেওয়ার অভিযোগে প্রথম স্ত্রী নিপা আক্তার (৩৪) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর আগে স্বামীর পুরুষাঙ্গ ব্লেড দিয়ে কেটে তাকে নিজেই হাসপাতালে নিয়ে যান তিনি।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৩ টা সময় কোনাবাড়ী থানাধীন জরুন উত্তর পাড়া আব্দুর রশিদ এর বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত নিপা আক্তার পটুয়াখালী জেলার মির্জাগঞ্জ থানার দক্ষিণ গাবুড়া গ্রামের আব্দুস সাত্তার এর মেয়ে। স্বামী আবুল হোসেন বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ থানার কৃষ্ণ কাঠি গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে। তারা ভাড়া বাসায় থেকে স্থানীয় পোশাক কারখানায় কাজ করতো। বাসার মালিক আব্দুর রশিদ বলেন,গত শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) রাত দেড়টা সময় আবুল হোসেনের চিৎকারে আমাদের ঘুম ভাঙ্গে।

কি হয়েছে জানতে চাইলে তার স্ত্রী নিপা আক্তার বলেন, পুরুষাঙ্গে পোকায় কামড় দিছে। পরে তাকে প্রথমে কোনাবাড়ী ক্লিনিকে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। ওই রাতেই গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজের জরুরী বিভাগের ডাক্তার আমার নাম্বারে ফোন করে বলে আবুল হোসেনের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেছে তার স্ত্রী। তখন আমরা বিষয়টি জানতে পারি। তিনি আরো বলেন,রোববার রাতে তার স্ত্রী নিপা আক্তার আবার বাসায় আসে। আমরা তাকে জিজ্ঞেস করলে বলে সুস্থ আছে। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বাসায় থাকলেও বিকেলে সে বাসা থেকে পালানোর চেষ্টা কর। পরে আমরা তাকে আটক করি।

বিষয়টি কোনাবাড়ি থানা পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। আবুল হোসেনের ছোট স্ত্রী হাসনা বেগম বলেন, আমার স্বামী শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিল। গত ৬ বছর আগে আমার সাথে বিয়ে হয়েছে। আমাদের একটি সন্তান রয়েছে। আমার স্বামী অসুস্থ থাকায় ঠিক মতো কাজ কাম করতে পারত না। আমরা দুজনই গার্মেন্টসে চাকরি করে চলতাম।

কি কারনে সে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে বুজতে পারছিনা? তিনি আরো বলেন,বর্তমানে আমার স্বামী উত্তরা সিন সিন জামান হসপিটালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। নিপা আক্তার বলেন,আসলে আমার মাথায় ভূত চেপে বসেছিল। কেন এমন করেছি বলতে পারছিনা?এসময় তিনি উপস্থিত সবার সামনে অকপটে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটার কথা স্বীকার করেন।

এ বিষয়ে গাজীপুর মেট্রপলিটন কোনাবাড়ী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাইদুর রহমান খান জানান, খবর পেয়ে সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটার সময় নিপা আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই পত্রিকার সকল সংবাদ, ছবি ও ভিডিও স্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক মাতৃজগত    
কারিগরি সহযোগিতায়ঃ Bangla Webs
banglawebs999991