মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১১ অপরাহ্ন
ঘোষনা
যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের সফল অভিযানে ২০০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার সহ গ্রেফতার-০২। পরিষদের ভিতরে আকটিয়ে মারধর, চাঁদা দাবির অভিযোগ ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে  মুক্তিযোদ্ধা দিবস উদযাপন ও শপথ গ্রহণ আওয়ামীলীগ আমলেই কৃষক তার উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মূল্য পায়-এমপি শাওন দক্ষিণ ছাত্রলীগের সম্মেলনের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি দেখছে সভাপতি পত্যাশী ডলার সিকদার নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার খেলনা ইউনিয়নে আতঙ্কিত ভাবে জেলেকে পিটিয়ে গুরুতর জখম সাভার থানা অসহায় পরিবার পূর্ণবাসন বহু মুখী সমিতির নাম ধারন করে চলছে ক্ষমতার অপব‍‍্যবহার বিশেষ কালিয়াকৈরে ৩টি অবৈধ করাত কল উচ্ছেদ, জরিমানা ও যন্ত্রাংশ জব্দ শ্রীমঙ্গলে চা বাগান থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে মেঝো ভাইকে হত্যা ছোট ভাই গ্রেফতার।

বিশ্বসেরার পুরস্কার পেলো সাতক্ষীরা’র ফ্রেন্ডশিফ হাসপাতাল

স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১২৭ বার পঠিত

সাতক্ষীরা জেলার “শ্যামনগর ফ্রেন্ডশীপ হসপিটাল” যুক্তরাজ্য ভিত্তিক রয়্যাল ইনষ্টিটিউট অব ব্রিটিশ আর্কিটেক্টস (রিবা) এর বিচারে মনোনীত হয়েছেন সেরা স্থাপত্যের পুরস্কারের জন্য।

২৬ জানুয়ারি রয়্যাল ইনস্টিটিউট অব ব্রিটিশ আর্কিটেক্টস আনুষ্ঠানিকভাবে ২০২১ সালের রিবা পুরস্কারের জন্য শ্যামনগর ফ্রেন্ডশীপ হাসপাতালের নাম ঘোষণা করেন।

১৬ নভেম্বর জার্মানের জেমস-সায়মন গ্যালারী ও ডেনমার্কের কোপেনহেগেনের লিলে ল্যাঞ্জেব্রো সেতুর সাথে সেরা তিন স্থাপত্যের তালিকায় জায়গা করে নেয় সুন্দরবন ঘেঁষা উপকূলপাড়ের এ স্থাপনা।

এর আগে বিশ্বের মোট ১১টি দেশের ১৬টি ব্যতিক্রমী নকশার স্থাপত্যের মধ্য থেকে চুড়ান্ত প্রতিযোগিতার জন্য মনোনীত হয় জয়বায়ু পরিস্থিতির বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে গড়ে তোলা “শ্যামনগর ফ্রেন্ডশীপ হসপিটাল”।

প্রায় ১৪ কোটি টাকা ব্যয়ে আড়াই একর জমির উপর সার্বিক সুবিধা রেখে নির্মিত, সুনিপুন নকশা আর অনন্য স্থাপত্যশৈলীতে ২০টি ভবনের সমন্বয়ে গড়ে তোলা হয়েছে স্থাপনাটি।

স্থানীয় প্রযুক্তি ও নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করে নির্মিত প্রায় ৪৮ হাজার বর্গফুটের ব্যতিক্রমী নকশার এ স্থাপনার তিন পাশে পানি বেষ্ঠিত।

পরিবেশ বিপর্যয় রোধে গোটা স্থাপনার যাবতীয় বর্জ্য তাৎক্ষনিকভাবে ধ্বংসে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় এসটিপি’র ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

সীমানা প্রাচীরের পরিবর্তে ভবনসমুহের মধ্যভাগ ও পাশ দিয়ে জলাধার সৃষ্টির মাধ্যমে নির্মল প্রাকৃতিক পরিবেশের উপস্থিতি নিশ্চিত করা হয়েছে।

৮০ শয্যা বিশিষ্ট এ হাসপাতালের নকশা তৈরি করেন,
স্থপতি কাশেফ মাহবুব চৌধুরী। নকশা প্রস্তুতকালে বাতাসের গতিপথ বিবেচনায় হাসপাতালের ওয়ার্ডগুলি সুনিপুণ ভাবে নির্ধারণ করেন তিনি।

ইতোপুর্বে বাংলাদেশের এ স্থপতির নকশাকৃত গাইবান্ধার আরবানা ভবনটি আগা খান স্থাপত্য পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিল।

হাসপাতালটির ওয়ার্ডসমুহের সম্মুখভাগে রাখা হয়েছে উন্মুক্ত খালি জায়গা।

সমগ্র স্থাপনার পয়েন্টে পয়েন্টে রোপিত হয়েছে, নানান প্রজাতির গাছ।

স্থাপনার চতুর্পাশে মনোরম স্থাপত্য শৈলীর মাধ্যমে হাসপাতালের ইনডোর ও আউটডোরের ক্ষেত্রে দুই ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

সীমানা প্রাচীরের পরিবর্তে বিভিন্ন অংশে ১০ ফুট প্রশস্থ জলাধারের উপস্থিতি নিশ্চিত করা হয়েছে। হাসপাতালটিতে আউটডোর ও ইনডোর চিকিৎসা ব্যবস্থার পাশাপাশি সুপরিসর করিডোরসহ অডিটোরিয়াম, কনভেনশন সেন্টার, ক্যান্টিন আর প্রার্থনা কক্ষ ও স্থাপন করা হয়েছে।

সমগ্রহ স্থাপনার একাধিক অংশে ইট ও কাঁচের সমন্বয়ে ভেন্টিলেশন ব্যবস্থাসহ প্রশস্থ দরজা-জানালা গোটা স্থাপত্যে দৃষ্টি কেড়েছে। বিদ্যুতের বিকল্প হিসেবে সুপরিসর করিডোর আর বিস্তর প্রাকৃতিক আলো বাতাসের উপস্থিতি স্থাপত্য শৈলীকে সৌন্দর্যময় করে তুলেছে।

ভবনসমুহের তলদেশ দিয়ে আধুনিক পানিনিস্কাশন ব্যবস্থার মাধ্যমে অতিরিক্ত পানি পাশ্ববর্তী খাল দিয়ে মাদার নদীতে নিস্কাশনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

যাবতীয় সুযোগ সুবিধা রেখে স্বল্প বাজেটে হাসপাতালের নকশা তৈরী করা হয়েছে।

পারিপার্শ্বিক অবস্থার পাশাপাশি সর্বোচ্চ আধুনিকতার ছোঁয়ায় প্রকৃতির সাথে জীব বৈচিত্রের সমন্বয়ে হাসপাতালের স্থাপনার নকশা তৈরী করা হয়েছে।

হাসপাতলটির সহকারী ব্যবস্থাপক অসীম ত্রিস্টোফার রোজারিও জানান, একাধিক অপারেশন থিয়েটার, নিউনেটাল কেয়ার ইউনিটে ইনকিউবেটর সুবিধাসহ সব ধরনের চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা রয়েছে।

এই স্থাপন পরিদর্শনে আসতে হলে দেশের যে কোন প্রান্ত হতে আপনাকে আসতে হবে, প্রথমে সাতক্ষীরা জেলায়, সেখান থেকে সুন্দরবন অভিমুখী শ্যামনগর উপজেলা সদর, সেখান থেকে দুই কিলোমিটার দূরে সোয়ালিয়া গ্রামে অবস্থিত এই মনোরম হাসপাতাল।

২০১৪ সালে হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শুরু হয়ে তা সম্পন্ন হয় ২০১৮ সালে এবং ওই বছর ই শুরু হয় চিকিৎসা সেবার কাজ।

মূল স্থাপনার মধ্যে ৫টি ভবন আবাসিক ও ১৫টি স্বাস্থ্য সেবার কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক শাহিনুর রহমান জানান ৬ জন চিকিৎসক ও ১২ জন সেবিকাসহ সেখানে ২৪ ঘন্টা জরুরী বিভাগে সেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রায় প্রতি মাসে দেশের বাইরে থেকে একাধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে এসে রোগীদের চিকিৎসা দেন। স্বল্প খরচে সব ধরণের পরীক্ষা নীরিক্ষারও ব্যবস্থা রয়েছে। এলাকার বাইরের রোগীর হাসপাতালটিতে চিকিৎসা নেয়ার সুযোগ রয়েছে বলেও তিনি নিশ্চিত করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই পত্রিকার সকল সংবাদ, ছবি ও ভিডিও স্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক মাতৃজগত    
কারিগরি সহযোগিতায়ঃ Bangla Webs
banglawebs999991