শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০২:৫৭ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা
গাজীপুরের ১২৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ দুইজন আসামি গ্রেপ্তার আবার ও ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে তাকওয়া পরিবাহন রাজধানী এক্সপ্রেস বাসের সাথে সংঘষে বাসের যাত্রী আহত  বঙ্গবন্ধুর উন্নয়ন ভাবনা: প্রেক্ষিত অবকাঠামো’ শীর্ষক আলোচনা সভা  সাহায্য চায় বারইপাড়া গ্রামের পঙ্গু রহিমা বেগম  আহলে বায়তে রাসুল( দ) স্মরণে শোহাদায়ে কারবালা উপলক্ষে খতমে কোরআন ,আলোচনা ,মিলাদ ও দোয়া মাহফিল আজিমুশশান ভাবে সম্পন্ন হয়। গাইবান্ধার পশ্চিম কুপতলায় কবরস্থান জবর দখলের চেষ্টাঃ রাজা মিয়া কর্তৃক এনছাড় আলীর বাড়িঘর ভাংচুর- মারপিট আমরা যদি বঙ্গবন্ধু এবং নেলসন মেন্ডেলার রাজনৈতিক এবং ব্যাক্তিগত জীবন সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় ইট ভাটা থেকে মাছ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার  শ্রীপুরের অপহৃতঅপহৃত স্কুলছাত্র উদ্ধার, একজন কারাগারে কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি শাহ্ কামাল আকন্দ রাস্তায় পড়ে থাকা লোকটির চিকিৎসার ব্যবস্থা করলো ।

মামলা থেকে বাঁচতে বিজয়ী প্রার্থীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ।

রানা ইস্কান্দার রহমান
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১২৪ বার পঠিত

গাইবান্ধার ফুলছড়িতে ভোট কেন্দ্রে ব্যালট বাক্স ছিনতাই, নির্বাচনী কর্মকর্তাদের মারধর ও আটক করে রাখার ঘটনায় হওয়া মামলা থেকে বাঁচতে বিজয়ী প্রার্থীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বিজয়ী প্রার্থী মোমিনুল ইসলাম প্রেসক্লাব গাইবান্ধা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন। সংবাদ সম্মেলনে মোমিনুলের পরিবারের সদস্য শাহিন আলম, শাহআলম, আমিনুল ইসলামসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

মোমিনুল ইসলাম বলেন, পঞ্চম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ফুলছড়ি উপজেলার ৬ নম্বর এরেন্ডাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী হিসেবে মোরগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করি। নির্বাচনে দুইটি কেন্দ্রের ফলাফলে আমি চর চৌমহন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪৯৫ ও আনন্দবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪১ ভোটসহ মোট ৫৩৬ ভোট পাই।
অন্যদিকে আমার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী

টিউবওয়েল প্রতীকের আবু বক্কর চর চৌমহন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পায় ৩৩ ভোট এবং আনন্দবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪৪৭ ভোটসহ মোট পায় ৪৮০ ভোট। আমি আমার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে ৫৬ ভোটের ব্যবধানে ইউপি সদস্য (মেম্বার) হিসেবে নির্বাচিত হই এবং নির্বাচন কর্মকর্তারা আমাকে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করে ফলাফলপত্র আমার হাতে তুলে দেয়।

এর আগে আবু বক্কর ও তার সমর্থকরা ভোট গণনা শেষে নিশ্চিত পরাজয় বুঝতে পেরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাচন কর্মকর্তাদের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় ভোট কেন্দ্রে থাকা ব্যালট বাক্সসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম ভাঙচুর ও ছিনতাই করে নিয়ে যায়। দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পুলিশ ও নির্বাচনী দায়িত্বে থাকা আনসারসহ সব কর্মকর্তাদের উপর হামলা চালায়।

এ ঘটনায় গত ৬ জানুয়ারি লুটপাট, ছিনতাই ও হামলার অভিযোগে ফুলছড়ি থানায় একটি মামলা করেন ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মহসিন আলী। সেখানে আবু বক্করকে প্রধান করে ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ২০০/২৫০ জনকে আসামি করা হয়।

মোমিনুল ইসলাম বলেন, নির্বাচিত হওয়ার পর পরাজিত প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আবু বক্কর হেরে গিয়ে আমার প্রাপ্ত ফলাফলকে প্রশ্নবিদ্ধ করাসহ আমার নামে বিভিন্ন পত্রিকায় মিথ্যে ভিত্তিহীন ও বানোয়াট সংবাদ পরিবেশন করেছে।

শুধু তাই নয়, সম্মানহানীসহ আমার নামে বিভিন্নভাবে মিথ্যা অপপ্রচার করে বেড়াচ্ছে। একইসঙ্গে নির্বাচনী ফলাফল ওলটপালট করার অশুভ চেষ্টা করে আমার নামে ভোটের ফলাফল নিয়ে বিভিন্ন দপ্তরে মিথ্যে অভিযোগ দাখিল করে।

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এমন কর্মকাণ্ডের তীব্র প্রতিবাদ জানান মোমিনুল। সেই সঙ্গে এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই পত্রিকার সকল সংবাদ, ছবি ও ভিডিও স্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক মাতৃজগত    
কারিগরি সহযোগিতায়ঃ Bangla Webs
banglawebs999991