বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা
অনিয়ম ও দুর্নীতির শীর্ষ পর্যায়ে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারা কর্মকর্তারা ওরা বলে সংবিধান ছুড়ে ফেলে দিবে সাংগঠনিক সম্পাদক, আফজাল হোসেন মির্জাগঞ্জের বৈদ্যপাশায় ইছালে সওয়াব ও মাহফিল অনুষ্ঠিত। গাইবান্ধা শহরের ‘ছালমা মঞ্জিল’ নামের মেস থেকে গোবিন্দগঞ্জ নিজ বাড়িতে যাবার পথে দুই কলেজ ছাত্রী নিখোঁজের অভিযোগ উঠেছে।  গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নে টিসিবির ডিলারের বিরুদ্ধে কার্ড ছাড়া পণ্য বিতরণের অভিযোগ উঠেছে। পুলিশের সহযোগিতায় হারিয়ে জাওয়া সন্তান খুঁজে পেলো পরিবার। সাতক্ষীরায় ১৮টি স্বর্ণের বারসহ ১ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ পুলিশের তদন্ত রিপোর্ট পুলিশের পক্ষেই থানা হেফাজতে নির্যাতনে নয়,আসামির মৃত্যু সড়ক দূর্ঘটনায়! সাপাহারে তাঁতইর বাখরপুর কওমী হাফেজিয়া সালাফিয়্যাহ মাদ্রাসায় হিফয সমাপ্তকারী প্রথম শিক্ষার্থীর বিদায় অনুষ্ঠিত তানোরে আট বিঘা জমির ফসল নষ্ট করে দিয়েছে -দুর্বৃত্তরা,

রাজশাহী আরএমপি(ডিবি)হ্যান্ডক্যাপ পরা অবস্থায় পিটিয়ে রক্তাক্ত করলেন এসআই জুবায়ের ও তার টিম।

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২২৫ বার পঠিত

রাজশাহীর মেট্রপলিটন পুলিশের(ডিবি)এসআই জুবায়ের ও তার টিম হ্যান্ডক্যাপ পরা অবস্থায় পিটিয়ে রক্তাক্ত করলেন এক আাসামি কে।মিজানের মোড় মতিহার থানা রাজশাহীর মৃত মিনুর ছেলে মোহাম্মদ রানাকে(৩২)কে গতকাল বিকাল চারটায় হ্যান্ডক্যাপ দিয়ে মাথায় আঘাত এস আই জুবায়ের।

হ্যান্ডক্যাপ দিয়ে মাথায় আঘাত করলে মাথা থেকে তীব্য রক্ত পাতের কারণে মাটিতে লুটিয়ে পরেন আসামি রানা।অবস্থা গুরুতর হলে এলাকায় জনগনের জটলা বেঁধে যায়। এতে করে কৌষলে দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন এসআই জুবায়ের ও তার টিম।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মিজানুরে মোড় এলাকায় যান এসআই জুবায়ের ও তার টিম।পরবর্তিতে শোনা যায় যে মোহাম্মদ রানা(৩২)ফেনসিডিল বেচার উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে।কিন্তু তাকে ধরার পরে দেহ তল্লাশি করার পরে মাদকদ্রব্য না পাওয়াই তাকে হ্যান্ডক্যাপ দিয়ে মারধর শুরু করে।এতে করে রানার কপাল ফেটে রক্তাক্ত হয়।

পুলিশ হচ্ছে একটি দেশের দ্বারা ক্ষমতাপ্রাপ্ত আইন কার্যকর,সামাজিক অভ্যন্তরীণ শৃঙ্খলা এবং জনগণের নিরাপত্তা রক্ষাকারী বাহিনী।তাদের ক্ষমতা বল বৈধতা ব্যবহারের অন্তর্ভুক্ত।যখন একজন দেশের রক্ষক বা রক্ষা বাহিনী হয়ে সাধারণ মানুষকে হেনস্তা করে ও আইনের আওতায় না নিয়ে একজন ব্যক্তি কে মারা ধর করার কোন অধিকার নেই পুলিশের।

এসআই জুবায়ের ও তার টিম আইন ভঙ্গ করে,আইন নিজের হাতে তুলে নিয়ে রানা কে হ্যান্ডকাফ পড়িয়ে মারধর শুরু করে তাহলে সাধারন জনগন কার কাছে আশ্রয় নিবে।সাধারণ জনগণ পরবর্তী সময়ে রানা কে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ভর্তি করেন।রানা বর্তমানে ৮নং ওয়ার্ডে চিকিৎসা দিন আছেন।

এই বিষয়ে অভিযুক্ত এস আই জুবায়ের এর সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই পত্রিকার সকল সংবাদ, ছবি ও ভিডিও স্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক মাতৃজগত    
কারিগরি সহযোগিতায়ঃ Bangla Webs
banglawebs999991