মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৭:২৮ অপরাহ্ন
ঘোষনা
হাবিবুল্লাহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রতিবাদ জনসভা একজন আদর্শ নেতা জহিরুল ইসলাম বাবু সাতক্ষীরা এসএসসি পরিক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় ছাত্রী’র আত্মহত্যা মা কে ফেলে দিয়েছে সন্তানেরা, ভিক্ষা করে যাদের লালন পালন করেছিলেন। সাংবাদিক আজহারুল ইসলাম সাদী’র কন্যা এ গ্ৰেড পেয়েছেন সে সকলের নিকট দোয়া প্রার্থী! উন্নয়নের ধারা যাতে অব্যাহত না থাকে সেজন্য ষড়যন্ত্রকারীরা বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে- এমপি শাওন এসআই নয়ন সহ দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিতে পিবিআই এর সুপারিশ। লক্ষ্মীপুরে ১০ টাকার জন্য মাকে কুপিয়ে হত্যা : ছেলের আমৃত্যু কারাদণ্ড লক্ষ্মীপুরে অবৈধ ইটভাটা ধ্বংস করলো ভ্রাম্যমাণ আদালত। রাজধানীর পল্লবীতে ছাত্রলীগের নতুন কমিটিতে স্হান না পেয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদেরকে কুপিয়ে জখম করেছে

শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনে দালালের দৌরাত্ম টিকেট বিক্রি কালোবাজারির হাতে

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২০ মার্চ, ২০২২
  • ৯২ বার পঠিত

আজিজুর রহমান আজিজ, হবিগঞ্জঃ
শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনে দালালের দৌরাত্ম্য কমছে না। টিকিট কালোবাজারি দালালদের সংখ্যা বেশী। এ নিয়ে যাত্রীদের ভোগান্তির যেমন শেষ নেই তেমনিভাবে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার।

জানা যায়, শায়েস্তাগঞ্জ স্টেশনে কর্মরত রেলের বিভিন্ন স্টাফদের সাথে আঁতাত করে দালালেরা টিকিট কিনে নেয়। ফলে টিকিটের সংকট সৃষ্টি হয়। এই টিকিটই চড়া দামে বিক্রি হয়। ফলে চেক আউট কাউন্টারে টিকিট কালোবাজারির বিষয়টি ধরা পড়ে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন যাত্রীরা।

অন্যদিকে, রেলগাড়িতে কর্মরত বিভিন্ন স্টাফদের সাথেও সিন্ডিকেট করেছে দালালেরা। টিকিট না থাকলেও টাকার বিনিময়ে গাড়িতে দালালেরা স্টাফদের সহযোগিতায় যাত্রী পরিবহন করছে। এক্ষেত্রে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। লোকসান হচ্ছে রেলের

শায়েস্তাগঞ্জ স্টেশন ঘুরে দালালদের ভয়ঙ্কর দালালির কিছু চিত্র উঠে এসেছে। স্টেশনে ট্রেন প্রবেশের পনের-বিশ মিনিটের মধ্যে দালালদের দৌরাত্ম্য বৃদ্ধি পায়। মুহুর্তে অনেক টিকিট বিক্রি হয় কালো বাজারে। অন্যদিকে টিকিট না থাকলেও টাকার বিনিময়ে দালালেরা গাড়িতে যাত্রী তুলে দেয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক যাত্রী আজকের দর্পণ কে বলেন, আমি গত তিন দিন আগে শায়েস্তাগঞ্জ হতে ঢাকা যাই। টিকিট ছিলো না। স্টেশনে ঢুকতেই এক কালোবাজারি এসে বলে টিকিট লাগবে কি না। এদিকে কাউন্টারে খোঁজ নিলে বলে স্ট্যান্ডিং টিকিটের লিমিটও শেষ। ফলে বাধ্য হয়েই দালালের শরণাপন্ন হই। শোভনের ৪০০ টাকা দিয়ে টিকিট নিই। ঢাকা স্টেশনে গিয়ে চেক আউটের সময় টিকিটটি একটি ভুয়া টিকিট বলে প্রমাণ পান রেলের কর্মকর্তারা। ফলে আমাকে জরিমানা গুনতে হয়। বিষয়টি সুরাহা হওয়া প্রয়োজন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই পত্রিকার সকল সংবাদ, ছবি ও ভিডিও স্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক মাতৃজগত    
কারিগরি সহযোগিতায়ঃ Bangla Webs
banglawebs999991